মাঝরাতে নরবলি ! সপ্তমী পূজা শেষে মধ্যরাতে রাজবাড়ীর ঠাকুর দালানে আবার বাজতে থাকে ঘণ্টা

news bazar24 : সপ্তমী পূজা শেষে মধ্যরাতে রাজবাড়ীর ঠাকুর দালানে আবার বাজতে থাকে ঘণ্টা, গঙ্গা ও শঙ্খ। পূজা শুরু হয় (durga puja 2023 west bengal )। কিন্তু সেই পূজার পদ্ধতি খুবই কঠিন। পূজায় অংশগ্রহণের শর্ত রয়েছে। রাজপরিবারের সদস্য ছাড়া আর কেউ এই পূজায় অংশ নিতে পারবেন না। কিন্তু জলপাইগুড়ির বৈকন্ঠপুর রাজবাড়ির পুজোয় কেন এই নিয়ম?
বৈকুণ্ঠপুর রাজবাড়ির পূজার বয়স ৫১৪ বছর। সপ্তমীর রাত বা অষ্টমী তিথি শুরু হলেই এই বাড়িতে শুরু হয় ‘মধ্যরাতের পুজো’। আমরা চাইলেও সেখানে প্রবেশ করতে পারি না। এটাই নিয়ম। কথিত আছে এই পুজোয় একসময় মানব বলি দেওয়া হত। সময়ের সাথে সাথে বদলেছে নিয়ম। এখন রক্ত ​​মাংসে মানুষ বলি দেওয়া হয় না।
বরং এটি চালের আটা দিয়ে তৈরি করা হয় মানব পুতুল। এরপর কুশ থেকে ‘নর’ বলি দেওয়া হয়। এ প্রসঙ্গে রাজপরিবারের পুরোহিত শিবু ঘোষাল বলেন, আমি আমার বাবা ও দাদার কাছে শুনেছি মধ্যরাতে পূজার সময় এখানে মানব বলি দেওয়া হতো। 9টি কবুতরও বলি দেওয়া হয়। এখন প্রথা না থাকলেও চালের গুঁড়া তৈরি করে কুশের সঙ্গে নর বলি দেওয়া হয়। তবে রাজপরিবারের সদস্য ছাড়া আর কেউ পূজায় অংশ নিতে পারবেন না।