অষ্টমীর সকালে কুনাল ঘোসের রামমোহন সম্মেলনে দুর্গাপূজায় রাজ্যপাল সিভি আনন্দ

news bazar24: অষ্টমীর সকালে কুনাল ঘোসের রামমোহন সম্মেলনে দুর্গাপূজায় এসেছিলেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। অঞ্জলিও দিলেন । বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে।

অষ্টমীর সকালে রাজ্য রাজনীতিতে বড় চমক! সকাল সাতটায় কুণাল ঘোষের পুজোয় যোগ দেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। এ দিন তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষের পুজো দিতে রাজ্যপাল সরাসরি পৌঁছে যান উত্তর কলকাতার সুকিয়া স্ট্রিটের রামমোহন সেমিনারিতে। এই পূজা কুনাল ঘোষ পূজা নামে পরিচিত। এই ক্লাবের সম্পাদক তৃণমূলের মুখপাত্র। রাজনৈতিক দূরত্ব ভুলে দুজনকেই শারদীয় উৎসব উপলক্ষে সৌজন্যমূলক কথাবার্তা বিনিময় করতেও দেখা যায়। সিভি আনন্দ বোসকেও কুনালের পাশে দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধা জানাতে দেখা যায়। কুণাল ঘোষ নিজেই রাজ্যপালকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। কিন্তু গভর্নর বসুর বক্তৃতার পর জল্পনা শুরু হয়।

এদিন কুণালের উপস্থিতিতে রাজ্যপাল বলেন, ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই চলবে। দুর্নীতি রক্তের বীজ আর হিংসা বিষ। মা কালী যেভাবে রক্তবীজ ধ্বংস করেছিলেন, ঠিক সেভাবেই আমরা দুর্নীতি দূর করব। এই প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে আমি শপথ নিচ্ছি গোটা বিশ্ব থেকে হিংসা দূর করার এবং রাক্ষসকে ধ্বংস করার।’ বিশেষজ্ঞদের দাবি, রাজ্যপাল কুণাল মণ্ডপ থেকে রাজ্যের শাসক দলকে টার্গেট করছেন। যদিও এটা মানতে রাজি নন কুণাল ঘোষ। “তিনি বিশ্বজুড়ে সহিংসতা এবং দুর্নীতি বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন। ” তিনি বলেছিলেন হয়তো গাজা উপত্যকায় শিশু হত্যার সহিংসতার ব্যাখ্যা দিয়েছেন। অন্য দিকে নিয়ে যাওয়ার দরকার নেই।
কুনাল সম্প্রতি রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। অষ্টমীর সকালে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস কুনাল ঘোষ রামমোহন সম্মিলনীর পূজায় অংশ নেন। পুজোর আবহে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের সমীকরণ কিছুটা পাল্টেছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।