সুন্দর দেখাও অপরের চোখে ! পুজোর দিন গুলিতে নিজেকে সাজিয়ে তুলুন সেলিব্রেটিদের মতন করে

ঋতুপর্ণা সাহা ঃ পুজোয় নিজেকে একটু অন্যরকম সাজাতে রইল মেকাপ আর্টিস্ট এর অসাধারণ কিছু টিপস্। পূজো আসছে এই দুটো শব্দই যেন মন থেকে সব দ্বিধা দ্বন্দ্ব কাটিয়ে নিজেকে নতুনভাবে মেলে ধরার দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান।

একটু সহজভাবে বললে পুজো মানেই প্রেম,আড্ডা,জমিয়ে খাওয়াদাওয়া আর হ্যাঁ- সাজগোজ তো বটেই সেটা ছাড়া তো অসম্পূর্ণ।ভিড়ের মধ্যে কিভাবে কেড়ে নেবেন নজর ভাবছেন? আর ভাবনা নয় , এবারে অনন্য রূপে নিজেকে তুলে ধরতে রইল বিখ্যাত মডেল আর্টিস্ট দের টিপস্।

আন্ডার ৩৫ যারা রয়েছেন তারা যেকোন ড্রেস একটু আত্মবিশ্বাস এর সাথে পড়লেই মন কেড়ে নেওয়া যায়। শর্ট স্কার্ট, লং স্কার্ট, জিন্স, নটেড টপ এসব ই এখন চলছে। শাড়ী র পাশাপাশি লাহেঙ্গা ও ভীষন চলছে। ইন্দো ওয়েস্টার্ন কালেকশন ও রাখতে পারেন নিজেদের ওয়াড্রব এ।

৩৫ এর উর্দ্ধে যারা আছেন সন্ধে বেলা কোনদিন ট্র্যাডিশনাল আবার কোনদিন পার্টি ওয়্যার শাড়ি তে সাজিয়ে তুলতে পারেন। ফিগার অনুযায়ী গাউন বা পালাজো ট্রাই করতে পারেন।

পুজোর চার দিনের মধ্যে অষ্টমীর অঞ্জলী নিয়ে অন্যরকম আবেগ কাজ করে। ২৫ এর উর্দ্ধে মহিলারা অবশ্যই শাড়ী পড়বেন এবং তা যদি লাল বা লাল সাদার কম্বিনেশন এ হয় তবে তো অসাধারণ লাগবে। বিবাহিতরা সাথে সোনার গয়না এবং অবিবাহিত রা সিলভার, টেরাকোটা, ম্যাট মেটাল, স্টনের গয়না , বা গোল্ডেন jewellery পড়তে পারেন , নিজেদের পছন্দ মত।

শাড়ি এবং গয়নার সাথে হবে একটু হালকা মেকআপ।দিনের বেলায় চরা মেকআপ এর দরকার নেই। মিষ্টি একটা লুক ই কিন্তু এখন নজরকাড়া হয়েছে।রেড লিপস্টিক ঠোঁট এ ব্যাস সাজ সম্পূর্ণ।

আউটফিট এবং সাজের সাথে হেয়ার স্টাইলিং নিয়েও উনি বলেছেন।মেয়েদের শর্ট , লং হেয়ার রাখার ফ্যাশন দুটোই চলছে। তাছাড়া লেয়ার কাটিং করতে পারেন তার মধ্যে ইনভার্টেড ব্লান্ট,ইনভার্টেড ওয়েজ ব্লানট সবই চলছে। স্ট্রেট, স্মুদ বা সামান্য কার্ল করলেও ভালো লাগবে।

ছেলেদের কথা ভুললে তো চলবেনা কারণ তারাও হেয়ার স্টাইল নিয়ে যথেষ্ট আর্টিস্ট  কেয়া মুখেরজী  জানিয়েছেন – ইউরোপিয়ান ফুটবলার কাট ভীষন ভাবে ট্রেন্ডিং এ রয়েছে। কলার ও করাতে পারেন। আর পছন্দ সহিত ট্যাটু করতে পারেন এগুলো এখন ফ্যাশন ইন এ রয়েছে।